১৯শে জানুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৬ই মাঘ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২রা জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৩৯ হিজরী

মুদির দোকানে গুঁড়ো দুধ কিনতে গিয়েছিল বালিকা! তার পরেই ঘটল অমানবিক ঘটনা

জানুয়ারি ১৩, ২০১৮, সময় ১০:৫৬ অপরাহ্ণ

শুক্রবার সন্ধ্যায় বাড়ির কাছে পাড়ারই এক মুদির দোকানে গুঁড়ো দুধ কিনতে গিয়েছিল বালিকাটি। কিন্তু দীর্ঘ সময় কেটে যাওয়ার পরে মেয়েকে বাড়ি ফিরতে না দেখে রাস্তায় বেরিয়ে খোঁজাখুঁজি শুরু করে বালিকার পরিবার।

দোকানে দুধ কিনতে গিয়ে প্রতিবেশী এক ব্যক্তির হাতে যৌন হেনস্থার শিকার হলো ছয় বছরের এক বালিকাকে। শুক্রবার সন্ধ্যায় ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার সোনারপুর থানার জগদ্দল এলাকায়। অভিযুক্ত ব্যক্তির নাম সাহাদৎ মোল্লা।

ঘটনার পরে শুক্রবার রাতেই সোনারপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করে বালিকার পরিবার। কিন্তু পরিবারের অভিযোগ, পুলিশ তাঁদের সঙ্গে সহযোগিতা করেনি। অবশ্য রবিবার সংবাদমাধ্যম এই বিষয়ে খোঁজ খবর নিতে শুরু করার পরে সকালেই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে পুলিশ।
শুক্রবার সন্ধ্যায় বাড়ির কাছে পাড়ারই এক মুদির দোকানে গুঁড়ো দুধ কিনতে গিয়েছিল বালিকাটি। কিন্তু দীর্ঘ সময় কেটে যাওয়ার পরে মেয়েকে বাড়ি ফিরতে না দেখে রাস্তায় বেরিয়ে খোঁজাখুঁজি শুরু করে বালিকার পরিবার। তখন এলাকার একটি অন্ধকার ঘরে মেয়ের গলার আওয়াজ শুনতে পান। ডাকাডাকি করতেই সেখান থেকে কাঁদতে কাঁদতে বেরিয়ে আসে ঐ শিশুটি। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করতেই মায়ের কাছে সব খুলে বলে শিশুটি।

এর পর সেই অন্ধকার ঘরে খোঁজাখুঁজি শুরু করতেই দেখা পাওয়া যায় অভিযুক্ত সাহাদৎ মোল্লার। বালিকার বাবা এই ঘটনার প্রতিবাদ করতেই উলটে তাঁকে এবং পরিবারের কয়েকজনকে মারধর শুরু করে অভিযুক্ত।

শুক্রবার রাতে এ বিষয়ে ওই নির্যাতিতা শিশুর পরিবার সোনারপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করতে গেলে পুলিশ প্রথমে অভিযোগ নেয়নি। যদিও পরে এ বিষয়ে অভিযোগ জমা নেয় তারা। সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই রবিবার সকালে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে সোনারপুর থানার পুলিশ।

Comments

comments

আজকের সব খবর

error: Content is protected !!